ফটোগ্যালারী

Fahmida jui 5 months ago ভিউ:104

ফটোগ্যালারী ৫


-কিরে গোলাপ কত করে?

- ভাইজান ৫ টেকা পিস ।

- কি বলিস বেটা ভালোবাসা এত সস্তা ?

- এর লাইগ্গা তো ভাই মাইনষে বেঈমানী করে ভালোবাসার লগে । দামি হইলে বেঈমানী করনের সাহস পাইতো না । 

- অতি সত্য কথা । 

- ভাই আপনের কয় পিস লাগবো । 

- আমার তো পুরোটাই লাগবে । কয়টা আছে গুনে দেখ । 

- গুনতে হইবো না ভাই । ৮০ পিস লইয়া বাহির হইছি একটাও বিক্রি হয় নাই ।

- আয়হায় আজকে তো আমি না আসলে ব্যবসায় লস খাইতি।

- কি করমু ভাই ফুল পইচ্ছা যায় তবুও কেউ লয় না । 

- কি করবি বল এখন তো আর ভালোবাসা ৫ টাকার গোলাপ আর শহরের ফুটপাতে নেই । এখন ভালোবাসা হলো সব ২৫০ টাকার পাস্তা আর একদম কর্নার সিটে । 

- কি কন ভাই বুঝি না ।

- ও তুই বুঝবি না । তাহলে কত টাকা হলো বল । 

- ভাই বরাবর ৪০০ টাকা । 

- কি করবি আজকে এই টাকা দিয়ে । 

- অনেক দিন করিম কাকার দোকানে বিরানি খাই না।

আইজকা খামু।  

- এই নে ৫০০ টাকা । ১০০ তোর ভাবীর পক্ষ থেকে দিলাম । আর শুন আমার অনেক ক্ষুদা লাগছে চল এক সাথে তোর করিম কাকার দোকানের বিরিয়ানি খাই । আমিই খাওয়াবো তোকে ।


হাঁটতে হাঁটতে 


- ভাইজান সেই হোটেল তো মেলা দূরে ।

- আরে বেটা সমস্যা কি! কথা বলতে বলতে দেখবি চলে এসেছি ।

- আর ভাবী যদি আইসা পরে?

- উনি আসবে না । উনি রাগ করে বসে আছে । আমাকেই যেতে হবে । উনার রাগ ভাঙানোর জন্যই তো গোলাপ নিলাম । 


খেয়ে বের হলাম । আসলেই করিম কাকার দোকানের বিরিয়ানি অসাধারন । লোকটাও অসাধারণ । সময় পেলে আবার আসবো । ছোট পিচ্চিটাকে বিদায় দিয়ে দিলাম । হটাৎ মনে পড়লো ওর নামটাই জানা হয়নি । সমস্যা নেই আবার কখনো দেখা হলে নাম জেনে নিবো । যাই যার জন্য গোলাপ কিনলাম তাকে দিয়ে আসি । 


- ওই মামা যাইবা । 

- কই মামা ?

- এই সামনেই । 


রিকশায় উঠে বসলাম । রিকশা চলছে । 


- মামা কি মামীর লগে দেখা করতে যান ।

- হ্যাঁ মামা তুমি কেমনে বুঝলা । 

- এত গোলাপ লইয়া আর কই যাইবনে । আমিও বিয়ার পর আপনের মামীরে ডেইলি একটা কইরা লাল টকটকে গোলাপ দিতাম । 

- মামা তো দেখি হেবি রোমান্টিক । এখন আর দাও না 

- কি যে কন মামা ওহন কি আর বয়স আছে । পোলা মাইয়া বড় হয়েছে না । 

- মামা সাইড করো । আর শুনো মামা ভালোবাসার কোনো বয়স নাই । জন্মের পর থেকেই তো মানুষ ভালোবাসতে শুরু করে । প্রথমে মা তারপর বাবা এরপর আরো কত ভালোবাসা । ভালোবাসার কোনো বয়স নাই । এরজন্যই তো মানুষ মারা যায় কিন্তু ভালোবাসা বেঁচে থাকে অনন্তকাল । আর শুনো এই নাও এখানে ৫০০ টাকা আছে আজকে মামীকে একটা শাড়ি দিবা আমার পক্ষ থেকে । আর এইনাও কিছু গোলাপ তোমারে দিলাম এইটা শাড়ির সাথেই দিয়ে দিবা । 


রিকশাওয়ালা আমার দিকে অনেকক্ষন তাকিয়ে রইলো প্রথমে অবাক হয়ে গেলো । একটু ভয়ও পেলো কিন্তু এখন তার চোখে শুধু আবেগ অনেক কষ্টে কান্না আটকে রেখেছে । আমি গেট দিয়ে ঢুকতেই মামা ডাক দিলো । 


- মামা ঐদিকে কই যান ।

- আমার ভালোবাসার কাছে মামা ।

- কিন্তু এটা তো কবরস্থান । 


- মামা তোমাকে তখন কি বললাম মানুষ মারা যায় ভালোবাসা বেঁচে থাকে অনন্তকাল ।?

লেখা:-ফাহমিদা জুঁই


কমেন্ট


সাম্প্রতিক পোস্ট